প্রযুক্তি

মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে ? মালয়েশিয়া কলিং ভিসা ( নতুন আপডেট )

বাংলাদেশ থেকে প্রতি বছর বিভিন্ন কাজের জন্য অনেক লোক পাড়ি জমায় । আপানারা যারা অধীর আগ্রহ নিয়ে জানতে চেয়েছেন মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে ? তাদের আগ্রহের অবসান ঘটানোর জন্য এই পোষ্টি লিখছি।এই পোষ্টিতে মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য কি কি ভিসা আছে ?

মালয়েশিয়া কলিং ভিসা সম্পর্কে বিস্তারিত লিখছি । আশা করি পোষ্টটি ধৈয্য সহকারে পড়লে আপনারদের সকল প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন।

মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে-মালয়েশিয়া কলিং ভিসা 2022(নতুন আপডেট)
মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে ?মালয়েশিয়া কলিং ভিসা 2022(নতুন আপডেট)

মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে ?

আপনার সকলে জানেন যে মালয়েশিয়া ভিসা দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ। আপনারা যারা দীর্ঘ দিন ধরে মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য উপেক্ষা করছেন তাদের জন্য সুখবর হচ্ছে প্রায় সাড়ে তিন বছর পর মালয়েশিয়া যাওয়ার ভিসা খুলে দিয়েছেন মালয়েশিয়া সরকার । সাধারনত যারা বাংলাদেশ থেকে যে সকল লোক মালয়েশিয়া পাড়ি জমায় তাদের অনেকে মালয়েশিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসায় যাওয়ার চেষ্টা করে থাকেন। মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে জানানোর পর আমরা আপনাদের মালয়েশিয়ার বিভিন্ন ভিসা সম্পর্কে বিস্তারিত জানাব ।

অবৈধ সিন্ডিকেটের জন্য বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া লোক যাওয়া বন্ধ হয়ে যায় । কিন্তু গত ১৯ ডিসেম্বর ২০২১ সালে পুনরায় মালয়েশিয়া সরকার ও বাংলাদেশ সরকার এক চুক্তি স্বাক্ষরের মাধ্যমে মালয়েশিয়া ভিসা খুলে দেন । এতে করে বাংলাদেশ নতুন করে মালয়েশিয়া যাওয়ার সুযোগ উন্মোচন হয় ।

মালয়েশিয়া যাওয়ার ভিসা সমূহ

মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে এই খবর জানার পর আপনাদের যে বিষয় জানা অধিক গুরুত্বপূর্ণ তা হল মালয়েশিয়া যাওয়ার ভিসা সমূহ সম্পর্কে । আসুন তাহলে মালয়েশিয়ার ভিসা সম্পর্কে জেনে নেই। বাংলাদেশী প্রবাসী হিসেবে আপনারা মালয়েশিয়াতে নিন্মোক্ত ভিসার মাধ্যমে মালয়েশিয়া যেতে পারবেন।

  • মালয়েশিয়া এম্প্লয়মেন্ট ভিসা বা মালয়েশিয়া ওয়ার্কিং ভিসা।
  • মালয়েশিয়ার বিজনেস ভিসা।
  • মালয়েশিয়া এন্ট্রি ভিসা ।
  • মালয়েশিয়ার মেডিকেল ভিসা।
  • মালয়েশিয়া টুরিস্ট ভিসা।
  • মালয়েশিয়া স্টুডেন্ট ভিসা।

মালয়েশিয়া কলিং ভিসা২০২২

মালয়েশিয়া কলিং ভিসা সাধারন জেনারেল শ্রমিকদের জন্যে একধরনের পিএলকেএস সরকারের অনুমোদিত বৈধ কাজের ভিসা । আপনি যদি মেডিকেল ফিটনেস থাকেন তাহলে ৩ বছর বা এর থেকে বেশি সময় কনটাক্ট করে কাজ করতে পারবেন ।এই ভিসাকে কয়টি সেক্টরে ভাগ করা যায় এবং সাধারণত এই পিএলকেএস ভিসাকে সেক্টরভেদে ৬ ভাগে ভাগ করা হয়ে থাকে । নিচে সেক্টরগুলির নাম দেয়া হলঃ

১) ম্যানুফ্যাকচারিং বা ফ্যাক্টরীর কাজের ভিসা উৎপাদন শ্রমিকঃ এই সক্টরে সাধারনত মেশিনের মাধ্যমে বিভিন্ন জিনিস উপাদন করা হয়ে থাকে। এই সেক্টরির বেশির ভাগ কাজ মেশিন ভিত্তিক তবে কিছু দক্ষ শ্রমিকের প্রয়োজন হয়ে থাকে । আপানারা যারা ফ্যাক্টরীর কাজে পারদর্শী তারা এই এই সেক্টরে আবেদন করতে পারেন।

২) কনসটাকশন কাজের ভিসা বা নির্মান শ্রমিকঃ এই সক্টরে বিল্ডিং কনসটাকশন কাজ করার জন্য শ্রমিক নিয়োগ দেয়া হয়ে থাকে । আপনারা যারা নির্মাণ কাজে পারদর্শী তারা এই সেক্টরে যেয়ে ভাল টাকা আয় করতে পারবেন।

৩) সার্ভিস সেক্টর বা সেবামূলক কাজের ভিসা যেমন দোকান বা ক্লিনার ভিসাঃ এই সেক্টরে ক্লিনিং কাজগুলি করতে হয় । আপনারদের যাদের ক্লিনিং কাজ পছন্দ তারা এই সেক্টরে যেতে পারেন।

৪)প্লানটেশন বা পামওয়েল বাগানের কাজের ভিসাঃ বাগানে পানি দেয়া , বাগান পরিষ্কার করা , বাগান দেখা শোনার জন্য এই সেক্টরে শ্রমিক নিয়োগ দেয়া হয়ে থাকে।

৫) এগ্রিকালচার বা কৃষি কাজের ভিসাঃ আপনাদের মধ্যে যাদের রোদ , বৃষ্টিতে কাজ করার অভ্যাশ আছে তাদের জন্য এই সেক্টরটি পারফেক্ট । কেননা পূর্ব অভিজ্ঞতা না থাকলে এই সেক্টরে টিকে থাকা মুশকিল হয়ে যাবে।

৬) ডোমেস্টিক ভিসা বা বাসার কাজের ভিসাঃ যারা বাসা বাড়ির কাজের পারদর্শী তাদের এই সেক্টটি অনেক সুযোগ বয়ে আনবে। আপনার কাজ থাকবে ঘরে যাবতীয় কাজ , পরিষ্কার ও গুছানো কাজ করা ।

মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত?

মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে জেনে যাওয়ার পর অনেকে হয়তো মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য পূর্ব প্রস্তুতি নিতেছেন । আপনাদের অনেকে বেশি বেতনে কাজ করতে আগ্রহী কেননা দেশের বাহিরে যেহেতু থাকতে হবে বেতন বেশি না হলে পোষাবে না। তবে মালয়েশিয়া সেক্টর ভিত্তিক কাজের ব্যবস্থা রয়েছে । আর এই সেক্টর গুলি উপরে যেমনটা বলেছি তেমনই হবে । যেহতু প্রতিটি সেক্টর একটি অন্যটি থেকে আলাদা সেহেতু বেতনও আলাদা হবে। কাজের ক্ষেত্রে সুযোগ সুবিধাও আলাদা দেয়া হবে। কিন্তু মালয়েশিয়া কাজের বেতন হিসেবে সর্বনিন্ম বেতন হবে ১ হাজার ২০০ রিঙ্গিত যা বাংলাদেশী টাকায় প্রায় ২৪ হাজার ৪২০ টাকার সমমূল্যের সমান ।

আরও পড়ুনঃ পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে ভিসা চেক করুন

মালয়েশিয়া যাওয়ার প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট

মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য আপনারা যারা পূর্ব প্রস্তুতি নিবেন তাদের সকলের কিছু ডকুমেন্ট সংগ্রহ করতে হবে। মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে এই চিন্তা এখন আর না করে মালয়েশিয়া যাওয়ার প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট সংগ্রহ করুন ।তাই মালয়েশিয়া যেতে যে সকল ডকুমেন্ট লাগতে তা নিচে উল্লেখ করা হলঃ

১। পাসপোর্টঃ মালয়েশিয়া যেতে হলে সর্বপ্রথম আপানার যে ডকুমেন্টি লাগবে তা হল পাসপোর্ট । তাই যাদের এখনো পাসপোর্ট করা নেই তারা অতি দ্রুত পাসপোর্ট করে নিন। আপানাদের যাদের পাসপোর্ট আছে তাদের পাসপোর্ট এর মেয়াদ আছে কিনা চেক করে নিতে হবে। কমপক্ষে আপনার পাসপোর্ট এর ৬ মাস মেয়াদ থাকতে হবে।

২। এনআইডি কার্ডঃ আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র থাকতে হবে ।

৩। জন্ম নিবন্ধন কার্ডঃ মালয়েশিয়া যেতে আপনার জন্ম নিবন্ধ কার্ডের প্রয়োজন ।
কেননা আপনার যে কোন কাজের ক্ষেত্রে সঠিক বয়স লাগবে।


৪। পুলিশ ক্লিয়ারেন্সঃ আপনি মালয়েশিয়া কাজের ভিসা যেতে চাইলে আপনার পুলিশ ক্লিয়ারেন্স থাকতে হবে। আপনি যদি কোন ধরনে অকারেন্স করে থাকেন তাহলে আপনার মালয়েশিয়া যেতে সমস্যা হবে।

৫। মেডিকেল সার্টিফিকেটঃ আপানার শরীর সুস্থ আছে কিনা বা শরীরে কোন রোগ আছে কি না তার প্রমানপত্র হিসেবে মেডিকেল সার্টিফিকেট থাকতে হবে। আর আপনি করোনার ভ্যাক্সিন দিয়েছেন এর প্রমান হিসেবে আপানার ভ্যাক্সিন এর কার্ড সাথে রাখবেন।

মালয়েশিয়া ভিসা চেক

আপনারা যারা মালয়েশিয়া যেতে আগ্রহী তাদের ভিসা করা হলে পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে মালয়েশিয়া ভিসা চেক করে নিতে হবে। কেননা কোন অবৈধ ভিসা দিয়ে মালয়েশিয়া যেতে পারবেন না । আপনি আপনার ভিসা ঘরে বসেই চেক করে নিতে পারবেন। এর জন্য সর্বপ্রথম আপনাকে এই https://eservices.imi.gov.my/myimms/PRAStatus?type=36&lang=en ওয়েবসাইটিতে প্রবেশ করতে হবে। এরপর তাদের দেয়া নির্দেশনা অনুযায়ী ভিসা চেক করে নিতে হবে।

মন্তব্য

আজকের এই পোষ্টটিতে মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে এর পাশাপাশি মালয়েশিয়া ভিসা সংক্রান্ত আরও অনেক তথ্য দেয়ার চেষ্টা করেছি ।আশাকরি এই পোষ্টটি আপনাদের অনেক উপকারের এসেছে ।আর মালয়েশিয়া ভিসা করার সম্পর্কে কোনো পরামর্শ বা প্রশ্ন থাকলে কমেন্টে লিখে জানাবেন আমারা আপনার সকল প্রশ্নের উত্তর দেয়ার চেষ্টা করব এবং এই আর্টিকেলটি ভালো লাগলে অবশ্যই বন্ধুদের বা পরিচিতদের সাথে শেয়ার করবেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button