অন্যন্য

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট 2023 ও ভিসা খরচ(India Tourist Visa Update)

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেটঃ ভারতবর্ষ  দেখলে দেখা হবে বিশ্ব এই কথাটি যেমন সত্য। তেমনি পার্শ্ববর্তী দেশ হিসেবে ভারতবর্ষে নানা প্রয়োজনে ভ্রমণ করার প্রয়োজন পড়ে। যেমনঃ টুরিস্ট, মেডিকেল, বিজনেস পারপাসে ভারত ভ্রমণ করতে হয়। কিন্তু ভারত ভ্রমণ করতে গেলে প্রয়োজন পড়বে ভ্রমণ ভিসার। সেজন্য ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা সংক্রান্ত সকল তথ্য পেতে আমাদের সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন।

ইন্ডিয়ান ভিসা কবে চালু হবে

 ভারতের সৌন্দর্য পৃথিবীর অন্যান্য দেশের সৌন্দর্য থেকে আলাদা। এক দেশ থেকে অন্য দেশে ভ্রমণ করার ক্ষেত্রে সেই দেশের অনুমতি পত্র হিসেবে ভিসা লাগে। দীর্ঘদিন  করোনার কারণে  ইন্ডিয়ার সকল প্রকার ভিসা বন্ধ ছিল। আপনাদের অনেকে জানতে চেয়েছেন ইন্ডিয়ান ভিসা কবে চালু হবে।

আপনারা যারা মেডিকেল, টুরিস্ট, ব্যবসা কিংবা পড়াশোনার জন্য ইন্ডিয়া যেতে চান তাদের জন্য রয়েছে বিশাল সুখবর। করোনার সকল প্রকার বাধা বিপত্তি অতিক্রম করে গত ১৫ ই নভেম্বর ২০২১ সালে পুনরায় ইন্ডিয়ার ভিসা চালু হয়েছে। তাই আপনারা যারা ইন্ডিয়ায় টুরিস্ট ভিসায় ইন্ডিয়া যেতে চান তারা এখন কোন প্রকার নিষেধাজ্ঞা ছাড়াই ইন্ডিয়া যেতে পারবেন। এছাড়া ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট পেতে সব সময় https://www.ivacbd.com সাইটি ভিজিট করতে পারেন।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট

আমরা জানি যে বেনাপোল রোড এবং আগরতলা রোড দিয়ে শ্যামলী এনা পরিবহনের আন্ডারে বিআরটিসি ও সোহার্দ্য বাস চলাচল করে। ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট  তথ্য অনুযায়ী, সেই সাথে ২৮ এপ্রিল থেকে নতুন যোগ করা হচ্ছে ঢাকা বাংলাবান্ধা শিলিগুড়ি বাস সার্ভিস। এটা শ্যামলী বিআরটিসি বাস ব্যানারে চলবে এবং প্রতিদিন এই বাসের মাধ্যমে যাতায়াত করা যাবে। এই বাস দুটি রোড দিয়ে যাতায়াত করবে । একটি হচ্ছে ঢাকা চ্যাংরাবান্দা শিলিগুড়ি, অন্যটি হচ্ছে ঢাকা বাংলাবান্ধা শিলিগুড়ি। এই বাসগুলি বিরতিহীনভাবে চলতে পারবেন।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট
ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট  তথ্য অনুযায়ী বর্তমানে অনেকের ভিসা মিস হচ্ছে। এই মিস হওয়ার পেছনে বিভিন্ন ধরনের কারন রয়েছে। আমাদের অনেকে দেখা যায় যে একটি ভিসার পারমিশন নিয়ে একাধিক কাজ করে থাকে। উদাহরণ স্বরুপ একজন লোক বিজনেস ভিসা নিয়ে মেডিকেল ভিসার কাজ সম্পন্ন করে থাকে। আবার অনেকে মেডিকেল ভিসায় যেয়ে বিজনেস কাজ করে থাকে। টুরিস্ট ভিসায় যেয়ে যদি কোন প্রকার কাজে জড়িয়ে পড়েন এর প্রমান পেলে ভিসা বাতিল হয়ে যাবে। 

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

আপনি যদি ইন্ডিয়া ট্যুর দেওয়ার জন্য ভারতে যান তাহলে কিছু প্রয়োজনীয় কাগজপ্ত্র সংগ্রহ করতে হবে। তাই ইন্ডিয়া টুরিস্ট ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপএ উল্লেখ করা হলঃ

১। সদ্যতোলা পাসপোর্ট সাইজের দুইকপি ছবি।

২।  পাসপোর্ট এর মেয়াদ কমপক্ষে ছয় মাস থাকতে হবে।

৩। নাগরিক সনদপত্র।

৪। করোনা ভ্যাকসিনের সার্টিফিকেট।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র
ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

৫। জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি।

৬। ড্রাইবিং লাইসেন্স জন্মনিবন্ধন কাগজের ফটোকপি।

৭। ভিজিট বা টুরিস্ট ভিসার অনুমোতিপত্র।

৮। আপনি যে হোটেলে উঠবেন তার ঠিকানা ও ফোন নাম্বার।

ইন্ডিয়ান ভিসা করতে কত টাকা লাগে

২০১৫ সালের ১ লা জানুয়ারি থেকে বাংলাদেশে ভারতীয় হাই কমিশনের সংশোধিত নতুন ভিসা প্রসেসিং ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। মুদ্রাস্ফীতি ও বর্ধিত মূল্যের জন্য ভিসা ফি বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট অনুযায়ী জানা যায় যে সর্ব প্রথম ২০১৪ সালের ১৮ ডিসেম্বর থেকে ভারতীয় ভিসা ফি পরিবর্তন করা হয়। ২০১৮ সালের ৫ আগস্ট থেকে ভারতীয় ভিসা ফির জন্য ৮০০ টাকা নির্ধারন করা হয়েছ। তাই আপনারা যারা ইন্ডিয়ান ভিসা করতে কত টাকা লাগে জানতে চান তাদের উদ্দেশ্যে বলব ভারতীয় ভিসা আবেদন ফি হিসেবে ৮০০ টাকা লাগবে।

ইন্ডিয়ান ভিসা করতে কত টাকা লাগে
ইন্ডিয়ান ভিসা করতে কত টাকা লাগে

ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্র

আমাদের অনেকেই বাংলাদেশে ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্র সম্পর্কে জানেন না। ভিসা আবেদন কেন্দ্র সম্পর্কে সঠিক ধারনা না থাকার কারনে অনেক সময় নানা জামেলা পোহাতে হয়। বাংলাদেশের প্রায় প্রত্যেকটি বিভাগীয় শহরে ভিসা আবেদন কেন্দ্র রয়েছে। এছাড়াও কিছু কিছু বৃহত্তম শহরেও ভারতীয় ভিসা প্রসেসিং করার জন্য ভিসা আবেদন কেন্দ্র রয়েছে। চলুন তাহলে সর্বেশষ ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট থেকে ভিসা আবেদন কেন্দ্রগুলি একনজরে জেনে নেইঃ

  • আইভিএসি, ঢাকা(জেএফপি)
  • ময়মনসিংহ
  • বরিশাল
  • যশোর
  • খুলনা
  • সিলেট
  • রাজশাহী
  • রংপুর
  • চট্টগ্রাম
  • কুমিল্লা
  • ব্রাহ্মণবাড়িয়া
  • নোয়াখালী
  • বগুড়া
  • ঠাকুরগাঁও

একটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে বাংলাদেশের প্রতিটি জায়গা থেকে ইন্ডিয়ান ভিসা আবেদন করতে একই টাকা লাগবে। অনেক সময় ভিসা দালালেরা টাকা পরিমাণ বেশি চাইতে পারে। তাই ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট জেনে নিতে হবে।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট 2023ওভিসা খরচIndia Tourist Visa Update
ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট 2023ওভিসা খরচIndia Tourist Visa Update

ইন্ডিয়ান ট্যুরিস্ট ভিসার আবেদন পদ্ধতি ২০২৩

বাংলাদেশ থেকে সবচেয়ে বেশি যে দেশে যায় সেটা হল ভারত। বিভিন্ন পারপাসে যেমন টুরিস্ট, ব্যবসা-বাণিজ্য লেখাপড়া ও চিকিৎসার জন্য। আর বাংলাদেশে যে দেশের মানুষ সবচেয়ে বেশি আসে তা হল ইন্ডিয়া। এর ফলে আপনারা সহজে বুঝতে পারছেন, বাংলাদেশ ইন্ডিয়া থেকে দুই দেশে ভিজিটরদেরসংখ্যাটা কত বড়।

আমাদের অনেকে ইন্ডিয়া ভিসা নিয়ে অনেক প্যানিক কাজ করে। এর জন্য অনেকে বিভিন্ন কনসালটেন্সির ও  দালালের কাছে যায়। এর জন্য আলাদা এক্স ফ্রি দিতে হয়। কিন্তু ইন্ডিয়ার ভিসা পাওয়া অন্য অন্য দেশের ভিসা পাওয়ার চেয়ে অনেক সহজ। আজকের আর্টিকেলটিতে মূলত কিভাবে  ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা করবেন বা ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা করার পদ্ধতি সম্পর্কে জানাবো। চলুন তাহলে  ভারতীয় টুরিস্ট ভিসা করার নিয়ম সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাকঃ

প্রথমে একটি ব্রাউজারে https://www.ivacbd.com  এই লিংকটি ওপেন করতে হবে। এরপর অনলাইন ভিসা অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম এ ক্লিক করতে হবে। এখানে ক্লিক করার পর একটি ফরম চলে আসবে। ফর্মটি আপনার জাতীয়তা, ইমেইল নাম্বার জন্ম নিবন্ধন তারিখ ও আপনি কোন টাইপের ভিসা নিয়ে ভারত যাবেন তা পূরণ করতে হবে।

আপনি যেহেতু টুরিস্ট  ভিসার জন্য আবেদন করবেন। তাই আপনাকে ভিসা টাইপ টুরিস্ট সিলেক্ট করতে হবে। এরপর কি পারপাসে ইন্ডিয়া যাচ্ছেন তা নির্বাচন করতে হবে। আপনি যেহেতু টুরিস্ট ভিসার জন্য ইন্ডিয়া যাবেন তাই আপনাকে ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট দিতে হবে। এভাবে যাবতীয় তথ্য প্রদান করে সাবমিট বাটনে ক্লিক করলে আপনার ভারতীয় টুরিস্ট ভিসা আবেদন সম্পন্ন  হয়ে যাবে। 

ইন্ডিয়ান ভিসা পেতে কত দিন লাগে?

আপনাদের অনেকে মনে একটি সাধারণ প্রশ্ন থাকে তা হল ইন্ডিয়ান ভিসা পেতে কত দিন লাগে। সাধারণত ইন্ডিয়ার ভিসা অ্যাপ্লিকেশনের ৪৮ অথবা ৭২ ঘণ্টা পর আপনার ভিসা আবেদন প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ সম্পন্ন হয়। ভিসা আবেদনের সময় আপনাকে একটি স্লিপ দেওয়া হবে। এই স্লিপের মাধ্যমে ৩-৫দিন পর আপনি আপনার পাসপোর্ট সংগ্রহ করতে পারবেন। 

ইন্ডিয়ান ভিসা করতে কি কি লাগে ২০২৩?

বর্তমান সময়ের সব থেকে যে প্রশ্নটির সম্মুখীন হতে হয় তা হল ইন্ডিয়ান ভিসা করতে কি কি লাগে। যে কোন দেশের ভিসা করার জন্য পাসপোর্ট সাইজের ছবি, জন্মনিবন্ধন কার্ডের ফটোকপি, নাগরিক সনদপত্র, জাতীয় পরিচয়পত্র এবং আপনি যে ভিসায় যাবেন তার অনুমতিপত্র লাগবে।

ইন্ডিয়ান ভিসা সেন্টার সাপ্তাহিক ছুটি কবে?

বাংলাদেশ ও ভারতের সরকারি ছুটি ব্যতীত সপ্তাহে ৫ দিন ইন্ডিয়া ভিসা সেন্টার খোলা থাকে। তবে ইন্ডিয়ান ভিসা সেন্টারগুলির সাপ্তাহিক ছুটি শুক্রবার ও শনিবার। ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট তথ্য অনুযায়ী এখন থেক শুক্র ও শনিবার ভিসা সেবা বন্ধ থাকবে।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য কি কি লাগে?

আমাদের অনেকে ইন্ডিয়া ট্যুর দেওয়ার ইচ্ছা থাকে। অনেক সময় ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য কি কি লাগে এই সম্পর্কে ধারনা থাকে না। ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট 2023 তথ্য অনুযায়ী যে সব কাগজ লাগবে তা হলঃ পাসপোর্ট সাইজের ছবি, জন্মনিবন্ধন কার্ডের ফটোকপি, নাগরিক সনদপত্র, জাতীয় পরিচয়পত্র এবং টুরিস্ট ভিসার অনুমতিপত্র।

ইন্ডিয়ান ভিসা চেক করার নিয়ম

ইন্ডিয়ান ভিসা করার পরIndian Visa Application Center (IVAC) ফাইল করে সাবমিট করতে হয়। প্রোফাইল সাবমিট করার পর এখান থেকে একটি স্লিপ দেয়। স্লিপে ভারতীয় ভিসা পাওয়ার সম্ভাবনার তারিখ উল্লেখ করা থাকে। আমাদের অনেকে এই তারিখের আগেও পাসপোর্ট পায়। আবার অনেকে এই তারিখের পরেও পাসপোর্ট পায় না। কিন্তু আপনি যদি ইন্ডিয়ান ভিসা চেক করার নিয়ম জানেন, তাহলে এই ধরনের সমস্যায় পড়তে হবে না। তাই আজকের আর্টিকেলটিতেতে ঘরে বসে ভারতীয় টুরিস্ট ভিসা চেক করার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত জানাবো।

এই পোষ্টের মাধ্যমে ভারতীয় ভিসা স্ট্যাটাস সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। আপনি আরো জানতে পারবেন আপনার ভিসায় কোন ধরনের স্ট্যাটাস থাকলে এসএমএস এর আগে পাসপোর্ট পেতে পারেন। চলুন তাহলে দুই মিনিটের মধ্যে ভারতীয় ভিসা স্ট্যাটাস চেক করার পদ্ধতি সম্পর্কে জেনে নেইঃ

ইন্ডিয়ান ভিসা স্ট্যাটাস চেক করার জন্য সর্বপ্রথম আপনাকে একটি ব্রাউজার ওপেন করতে হবে। এরপর আইভিএসি লিখে সার্চ করতে হবে। প্রথমে যে রেজাল্ট আছে www.ivac.com এই ওয়েবসাইটে ঢুকতে হবে। এরপর আপনাকে ভিসা আবেদন ট্র্যাক ঐখানে ক্লিক করতে হবে।

ভিসা আবেদন ট্র্যাক ওইখানে ক্লিক  পর আপনার আবেদনটি ট্র্যাক করুন এরকম একটি লাইন দেখতে পাবেন। এরপর এই লাইনটা ক্লিক করার পর আপনি দুটি অপশন পেয়ে যাবেন। এরপর আপনাকে রেগুলার ভিসা স্ট্যাটাস বাটনে ক্লিক করতে হবে।

এখন শুরু হবে ইন্ডিয়ান ভিসা চেক করার আসল আসল কাজ। সবুজ কালারের লেখার ক্যাপচা পূরণ করতে হবে। এরপর আপনাকে আপনার ওয়েব নাম্বার ফাইভ পূরণ করতে হবে। কোড নাম্বার পূরণ করার পর সাবমিট বাটনে ক্লিক করলে আপনার স্ট্যাটাস দেখতে পাবেন। আপনার সবগুলো ভারতীয় ভিসা স্ট্যাটাস যদি ডান থাকে তাহলে এসএমএস না আসলেও  পাসপোর্ট পেয়ে যাবেন।

পরিশেষে,

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপডেট ২০২৩ অনুযায়ী আপনি যদি টুরিস্ট ভিসা নিয়ে মেডিকেল, ব্যবসা বানিজ্য ও অন্যান্য কাজে করেন তাহলে এন্ট্রি রিফিউজ করে দিতে পারে। এমন কি আপনার ভিসা বাতিল করে দিতে পারে। একবার যদি আপনার এন্ট্রি রিফিউজ সীল পরে তাহলে পরবর্তীতে ভিসা পেতে সমস্যা হবে। তাই এই ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button